২১শে অক্টোবর, ২০১৯ ইং | ৬ই কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | রাত ১০:০০

অব্যবস্থাপনার কারণে আমাদের গ্রোথ অন অনেক হ্যাম্পার হয়েছে, আর নয়-এলজিআরডি মন্ত্রী

বিশেষ প্রতিবেদকঃ ঢাকা ওয়াটার সাপ্লাই অ্যান্ড সুয়্যারেজ অথরিটিতে (ঢাকা ওয়াসা) অব্যবস্থাপনার কারণে আমাদের গ্রোথ অন অনেক হ্যাম্পার হয়েছে, আর নয়। ওই অবস্থায় চলতে দেওয়া হবে না বলে জানিয়েছেন স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায়  মন্ত্রণালয়ের মাননীয় মন্ত্রী জনাব মো. তাজুল ইসলাম।

আজ ২৪ জানুয়ারি, বৃহস্পতিবার রাজধানীর কারওয়ান বাজারে ওয়াসা ভবনে প্রতিষ্ঠানটির কর্মকর্তাদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় তিনি এ সব কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, আগামীতে আমরা অনেক দৃশ্যমান কিছু দেশকে দিতে চাই। দেশকে একটা ভিন্ন অবস্থায় নিয়ে যেতে চাই। চমকপদ কিছু দিতে চাই। এজন্য আমাদের সুপেয় পানি হলো একটা বড় চ্যালেঞ্জ। আমরা সবার মধ্যে সমান সেবা দিতে চাই।

তিনি আরো বলেন, আমি জানি ঢাকা ও চট্টগ্রাম ওয়াসা চরম অবহেলা-অব্যবস্থাপনার মধ্য দিয়ে গেছে ও চলেছে। এ অবস্থায় আর চলতে দেওয়া হবে না।

ওয়াসার কর্মকর্তাদের উদ্দেশে মাননীয় মন্ত্রী জনাব মোঃ তাজুল ইসলাম বলেন, আপনারা অতীতের ত্রুটিপূর্ণ ব্যাপারে সতর্ক না হলে পরিণতি ভালো হবে না। আমরা অনেক দূরে যেতে চাই, আর অন্যায় সহ্য করা হবে না। আপনাদের যার যেখানে দুর্বলতা আছে তা এক্ষুনি শোধরান তা না হলে পরিণতি খারাপ হবে। আর কোনো অন্যায় সহ্য করা হবে না। অব্যবস্থাপনার কারণে আমাদের গ্রোথ অন অনেক হ্যাম্পার হয়েছে, আর নয়।

সভায় ওয়াসার এমডির বিরুদ্ধে সিবিএ নেতাকর্মীরা অবস্থান নিয়ে নানা স্লোগান দিতে থাকেন।

সাংবাদিকরা এমডিকে প্রশ্ন করতে চাইলে এলজিআরডিমন্ত্রী বলেন, আজ আমি উপস্থিত আছি, আজ না। তবে আমি সাংবাদিকসহ সবার কথা শুনতে চাই। আমাকে ব্যক্তিগতভাবে জানাবেন আপনাকে স্বাগত জানাবো।

এ বিষয়ে সাংবাদিকরা মন্ত্রীকে প্রশ্ন করলে তিনি বলেন, আমি আজ এসে এ অবস্থা দেখলাম। আমি সবার কথা শুনবো, সবাইকে নিয়ে কাজ করতে চাই। কারো কোনো অন্যায় থাকলে অবশ্যই ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সভায় উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব এস এম গোলাম ফারুক, ওয়াসার ব্যবস্থাপনা পরিচালক তাকসিম এ খানসহ ওয়াসার অন্যান্য কর্মকর্তাগণ।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*